এসএসসিতে এবার নির্বাচনী পরীক্ষা নেই, ফরম পূরণ ১ এপ্রিল থেকে

এসএসসিতে এবার নির্বাচনী পরীক্ষা নেই, ফরম পূরণ ১ এপ্রিল থেকে

চলতি বছরের মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) পরীক্ষার আগে নির্বাচনী পরীক্ষা হবে না বলে ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। আর ফরম পূরণ শুরু হবে আগামী ১ এপ্রিল থেকে।

আজ রোববার ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের ওয়েবসাইটে দেওয়া এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ ঘোষণা দেওয়া হয়।

ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক নেহাল আহমেদ প্রথম আলোকে বলেন, এবার করোনা মহামারির কারণে সারা দেশেই নির্বাচনী পরীক্ষা না নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

এদিকে ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের ওয়েবসাইটে দেওয়া বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আগামী ১ এপ্রিল থেকে ৭ এপ্রিল পর্যন্ত চলতি বছরের এসএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণের কাজ চলবে। ফরম পূরণের কাজ চলবে অনলাইনে। তবে বিলম্ব ফিসহ ১০ থেকে ১৩ এপ্রিলের মধ্যে ফরম পূরণ করা যাবে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, বিলম্ব ফি ছাড়া অনলাইনে ফি জমা দেওয়ার শেষ সময় ৮ এপ্রিল। এরপর বিলম্ব ফিসহ অনলাইনে ফি জমা দেওয়া যাবে ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত। বিলম্ব ফি পরীক্ষার্থী প্রতি ১০০ টাকা করে নির্ধারণ করা হয়েছে।

বিভাগভেদে ফরম পূরণের ফি নির্ধারণ করে দিয়েছে বোর্ড। এর মধ্যে বিজ্ঞান বিভাগের পরীক্ষার্থীদের ফরম পূরণ বাবদ মোট ফি ১ হাজার ৯৭০ টাকা, ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগ এবং মানবিক বিভাগের পরীক্ষার্থীদের ফরম পূরণের মোট ফি ১ হাজার ৮৫০ টাকা ধরা হয়েছে।

এ ছাড়া পরীক্ষার্থীদের বেতন ও সেশন চার্জ গত বছরের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত পরিশোধ করতে বলা হয়েছে। কোনোভাবেই ২০২১ সালের বেতন বা সেশন চার্জ নেওয়া যাবে না। ২০১৯ সালের রেজিস্ট্রেশনধারী শিক্ষার্থীরা চলতি বছরের এসএসসি পরীক্ষায় নিয়মিত পরীক্ষার্থী হিসেবে অংশ নেবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়।

এসএসসি পরীক্ষা সাধারণত প্রতিবছর ফেব্রুয়ারির শুরুতে অনুষ্ঠিত হয়। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে শিক্ষাপঞ্জি এলোমেলো হয়ে গেছে। করোনার কারণে গত বছরের ১৭ মার্চ থেকে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছুটি চলছে। আগামী ৩০ মার্চ থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার ঘোষণা থাকলেও করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় সেটি নিয়েও অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে। সরকারের লক্ষ্য হলো সংক্ষিপ্ত পাঠ্যসূচির ভিত্তিতে এ বছরের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়া। কিন্তু সেটি শুরু করা নিয়েও অনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছে। ফলে এ বছরের এসএসসি পরীক্ষা কবে শুরু হবে, সেটিও নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না। এর আগে করোনার কারণে গত বছরের এইচএসসি পরীক্ষা হয়নি। শিক্ষার্থীদের এসএসসি ও জেএসসি পরীক্ষার গড় ফলের ভিত্তিতে ফল মূল্যায়ন করা হয়েছে।

Source: prothomalo

খবর