fbpx

Desh Amar

Online news Portal

হোটেলে কোয়ারেন্টাইন থাকা অবস্থায় এক যুক্তরাজ্য প্রবাসী বিয়ে করছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। যুক্তরাজ্য ফেরত ওই প্রবাসী সিলেট নগরীর লামা বাজার এলাকার ‘হোটেল লাভিস্তা’

তে কোয়ারেন্টাইনে ছিলেন। সেই হোটেলেই বিয়ের আয়োজন করা হয়। এতে কনে ছাড়াও বাইরে থাকা আসা অনেক অতিথিরা অংশ নেন। গত ২০ মার্চ রাতে ঘটা করে এ বিয়ের আয়োজন হয়।

গত ১৮ মার্চ যুক্তরাজ্য থেকে সিলেটে আসা যাত্রীদের মধ্যে ১১ জনকে হোটেল লাভিস্তায় প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়। এদের মধ্যে দুজন সুনামগঞ্জ জেলার ছাতক উপজেলার জাঙ্গাইল এলাকার এক নারী (৪৮) ও তার ছেলে (২৮)। ওই মা অবস্থান করেন ৪০১ নম্বর কক্ষে আর তার ছেলে অবস্থান করেন ৪০৬ নম্বর কক্ষে।

নিয়ম অনুযায়ী তারা সব ধরণের জনসমাগম এবং শা;রীরিক দূরত্ব বজায় রেখে নির্ধারিত নিয়ম মেনে চলার কথা থাকলেও লাভিস্তা হোটেলে স্টেজ সাজিয়ে অনুষ্ঠান করে বিয়ে করলেন যুক্তরাজ্য প্রবাসী ওই তরুণ (২৮)।

আর এ বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দেন বাইরে থেকে আসা প্রায় ৫০ জন অতিথি। বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শেষে ভুরিভোজও হয় হোটেলের রেস্টুরেন্টে। এর আগে গত ১৮ মার্চ বিকেলে একই হোটেলেই ‘এঙ্গেজমেন্ট’ অনুষ্ঠান হয়।

ছেলের বিয়ে উপলক্ষে বাইরে বের হয়ে নগরীর বিভিন্ন বিপণিবিতান থেকে কেনাকাটাও করেছেন প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে থাকা যুক্তরাজ্য প্রবাসী যুবকের মা। যার পুরোটাই হয়েছে হোটেল কর্তৃপক্ষের যোগসাজশে। যার বিনিময় হোটেল কর্তৃপক্ষ আদায় করেছেন মোটা অংকের আর্থিক সুবিধা।

হোটেল লাভিস্তা কর্তৃপক্ষ তথ্য গোপনের চেষ্টা করে প্রথমে পুরো ঘটনা অস্বীকার করে ধামাচাপা দেওয়া চেষ্টা করে।

সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (গণমাধ্যম) বিএম আশরাফ উল্যাহ তাহের বলেন, পুলিশের কাজ হচ্ছে নিরাপত্তা দেওয়া। হোটেল কর্তৃপক্ষ কোনো সমস্যা অনুভব করলে পুলিশকে জানাবেন।

কিন্তু তারা পুলিশের অগোচরে অন্যান্য বর্ডারের মতো প্রবাসীদের বিয়ে করায়, বাইরে বের হওয়ার সুযোগ দিয়ে দোষ চাপায় পুলিশের ওপর। বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও তিনি জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *