করোনা রোগী কত দিন পর প্রিয়জনের সংস্পর্শ আসতে পারবেন?

করোনা রোগী কত দিন পর প্রিয়জনের সংস্পর্শ আসতে পারবেন?

সারা বিশ্ব করোনার কারণে বিধ্বস্থ। চলছে এর তৃতীয় ঢেউ। ঢেউ লেগেছে বাংলাদেশেও। তৃতীয় ঢেউ বয়ে যাওয়ার পর প্রতিদিন বহু মানুষ সংক্রমিত হচ্ছেন। উপসর্গের দিক থেকেও বেশ কিছু বদল এসেছে এই মারণ ভাইরাসের। কারও কোনও উপসর্গ না থাকার পরও করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজেটিভ এসেছে। কারও আবার সামান্য কিছু উপসর্গ রয়েছে। ফলে গত দুটো বছর ধরে মানুষের কাছে আতঙ্কের আর এক নাম করোনাভাইরাস হয়ে দাঁড়িয়েছে।

করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর অনেকেরই কম উপসর্গ থাকার কারণে কিংবা শারীরিক অবস্থা অনুযায়ী বাড়িতেই আইসোলেশনে থাকার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। আবার প্রয়োজনে চিকিৎসকেরা হাসপাতালে ভর্তিরও নির্দেশ দিচ্ছেন। বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, যদি কেউ এই মারণ ভাইরাসে সংক্রমিত হন, তাহলে কতদিনের মাথায় প্রিয়জনের সঙ্গে দেখা করতে পারবেন।

বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর অন্য কোনও ব্যক্তির সঙ্গে মেলামেশার সঠিক সময় জেনে রাখা খুবই জরুরি। কারণ হিসেবে তারা জানাচ্ছেন, এখন অনেকেই বাড়িতে আইসোলেশনে থাকছেন। এবং সেখানেই চিকিৎসা চলছে তার। করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ আসার পর্যন্ত অপেক্ষা করতে বলছেন বিশেষজ্ঞরা।

তাদের মতে, রিপোর্ট পজেটিভ আসার পর অন্তত পাঁচদিন কোনও ব্যক্তির সংস্পর্শে আসতে নিষেধ করছেন বিশেষজ্ঞরা। উপসর্গ অনুযায়ী আইসোলেশনে থাকার দিন বৃদ্ধি করতে হবে। এরইসঙ্গে আক্রান্ত ব্যক্তির শরীরে কী কী সমস্যা দেখা দিচ্ছে, তার নিয়মিত আপডেট থাকা দরকার চিকিৎসকের কাছে। রিপোর্ট নেগেটিভ আসা এবং কোনও উপসর্গ না থাকলে তবেই কারও সঙ্গে দেখা করতে পারবেন আক্রান্ত ব্যক্তি।

তবে, প্রতিটা ক্ষেত্রেই মেনে চলতে হবে চিকিৎসকের পরামর্শ। তিনি যখন আইসোলেশন থেকে বেরিয়ে আসার অনুমতি দেবেন, তখনই কারও সংস্পর্শে আসা উচিত সংক্রমিত ব্যক্তির।

করোনা