বেরিয়ে আসল খবর, যেভাবে হ’ত্যা করা হয়েছে এসময়ের জনপ্রিয় অ’ভিনেতা সুশান্ত রাজপুত

বলিউড অ’ভিনেতা সু’শান্ত সিং রাজপুতের র’হস্যজনক মৃ’ত্যুতে শো’কস্তব্ধ গোটা ভা’রত। বরিবার (১৪ জুন) বান্দ্রার কার্টার রোডের নিজ বাড়িতে এই অ’ভিনেতার ঝু’লন্ত ম’রদেহ উ’দ্ধার করেছে মু’ম্বাই পু’লিশ।

মুম্বাই পু’লিশের প্রা’থমিক ত’দন্তে এই মৃ’ত্যু ‘আ’ত্মহ’ত্যা’ বলেই মনে করা হচ্ছে। তাদের দাবি, গ’লায় ফাঁ’স দিয়ে আ’ত্মহ’ত্যার জন্যই তার মৃ’ত্যু হয়েছে। বাড়ি থেকে স’ন্দেহ’জনক কোনো কিছুই পাওয়া যায়নি। তবে ম’য়নাতদ’ন্তের রি’পোর্ট হাতে আ’সার আগে চূ’ড়ান্ত সি’দ্ধান্তে তারা পৌঁ’ছাতে পারছে না বলেও জানিয়েছে মুম্বাই পু’লিশ।

এদিকে, অ’ভিনেতার মৃ’ত্যুর খবরে গণমাধ্যমে তার মামা আরসি সিং বলেছেন, এটা আ’ত্মহ’ত্যার ঘটনা নয়, সুশান্ত এমনটা করতেই পারে না। ঘর থেকে কোনো সুসাইড নোট উ’দ্ধার না হওয়াতে স’ন্দেহ আরও বেড়ে গিয়েছে তার।তিনি এও বলেন, এটা হ’ত্যা মা’মলা। বিহারের যুব সম্প্রদায় এবং রাজপুত মহাসভা এই ঘ’টনায় সিবিআই ত’দন্ত চায়। ভা’রতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের কাছে সিবিআই ত’দন্তের আবেদন জানান প্রয়াত এই অ’ভিনেতার মামা।

সুশান্তের পরিবারের ঘনিষ্ঠজনদের দাবি, অবসাদগ্রস্ত হয়ে কোনোভাবেই আত্মহ’ত্যার মতো পরিস্থিতিতে ছিলেন না তিনি। এমনকি, কথা বলার সময়ও তার কন্ঠস্বরে তেমন লক্ষণ বোঝা যায়নি বলে জানিয়েছেন অ’ভিনেতার বোন।ভা’রতীয় গণমাধ্যমের একটি প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, সুশান্তের মৃ’ত্যুর আগের দিন অর্থাৎ

শনিবার (১৩ জুন) বান্দ্রার কার্টার রোডের নিজ ফ্ল্যাটে উপস্থিত ছিলেন তার কয়েকজন বন্ধুরা। আপাতত পু’লিশ প্রতিবেশীদের জে’রা করছে। এরপর অ’ভিনেতার বন্ধুদের খোঁজ নিয়ে তাদের তলব করা হবে।আ’ত্মহ’ত্যার তত্ত্বই আ’পাতত সত্য বলে ধরে নিয়েছেন তার ভক্ত-অনুরাগীরা। তবে সময় বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ঘনীভূত হচ্ছে অ’ভিনেতার আত্মহ’ত্যার র’হস্য!

এই অ’ভিনেতার মৃ’ত্যুর খবর প্রকাশ্যে আসতেই শোক ছড়িয়ে পড়ে সারা বিশ্বে। তার মৃ’ত্যুতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শোক বার্তা জানিয়েছেন ভা’রতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি থেকে বলিউড অ’ভিনেতা অমিতাভ বচ্চন, শাহরুখ, সালমান, অ’ক্ষয় সহ অসংখ্য তারকারা।সুশান্ত সিং রাজপুত ১৯৮৬ সালের ২১ জানুয়ারি বিহারের পাটনা জে’লায় জন্মগ্রহন করেন। পরে পাটনার সেন্ট কারেন উচ্চ বিদ্যালয় এবং দিল্লির হংসরাজ মডেল স্কুলে পড়েন। পরবর্তীতে দিল্লির প্রযু’ক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে যন্ত্র প্রকৌশল বিভাগে ভর্তি হন।

২০০৮ সালে বালাজি টেলিফিল্ম প্র’যোজিত ‘কিস দেশ মে হ্যায় মেরা দিল’ ধারাবাহিকে প্রীত জুনেজার এর চরিত্রে ছোট পর্দায় অ’ভিষেক হয় তার। পরে ২০০৯ সালে ‘পবিত্র রিশতা’তে দেশমুখের চরিত্রে অ’ভিনয় করে দর্শকদের নজর কাড়েন তিনি।

এরপর ২০১৩ সালে অ’ভিষেক কাপুর পরিচালিত ‘কাই পো চে’ সিনেমা দিয়ে বি টাউনে পা রাখেন এই অ’ভিনেতা। তারপর আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে। একের পর এক ব্লকবাস্টার এ দেখা মিলেছে তার। অ’ভিনেতার উল্লেখযোগ্য কাজের মধ্যে রয়েছে, ‘শু’দ্ধ দেশি রোমান্স’, ‘পিকে’, ‘ডিকেটটিভ বোমকেশ বক্সী’, ‘কেদারনাথ’-এর মতো জনপ্রিয় সিনেমাগুলো। তবে ধোনির বায়োপিক ‘এম এস ধোনি: দ্য আনটোল্ড স্টোরি’তে অ’ভিনয় করে দর্শক জনপ্রিয়তার শীর্ষে উঠে আসেন তিনি। তার অ’ভিনীত সবশেষ চলচ্চিত্র ‘ছিছোড়ে’।সূত্রঃ আনন্দবাজার পত্রিকা

Check Also

আত্মহ’ত্যার করেছেন বলিউডের যে তারকারা

পর্দার চিত্রের সাথে বাস্তবতার মিল হবার নয়। দুই দুনিয়াই নিজেদের আলাদা আলাদা বৈশিষ্ট্যে ভরপুর। পর্দার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *